সোলায়মানের সাথে পিপড়ার কথা!

কল্পকাহিনী পড়ে ছোট বাচ্ছাদের মনে বিশ্বাস তৈরি হয় যে ”সিন্ডেরেলা” আসলেই পাখি বা ইদুরের সাথে কথা বলতে পারে ! একজন বয়স্ক মানুষ যখন বিশ্বাস করে সোলেমান আসলেই কোন পিপড়ার সাথে কথা বলেছে (কোরআন ২৭:১৮-১৯), তখন কি তাকে কোন বাচ্চা থেকে পৃথক মনে হয় ?

জবাব :

অনুগ্রহ করে আয়াত (কোরআন ২৭:১৮-১৯) নিজে পড়ুন।

যখন তারা পিপীলিকা অধ্যূষিত উপত্যকায় পৌঁছাল, তখন এক পিপীলিকা বলল, হে পিপীলিকার দল, তোমরা তোমাদের গৃহে প্রবেশ কর। অন্যথায় সুলায়মান ও তার বাহিনী অজ্ঞাতসারে তোমাদেরকে পিষ্ট করে ফেলবে।
তার কথা শুনে সুলায়মান মুচকি হাসলেন এবং বললেন, হে আমার পালনকর্তা, তুমি আমাকে সামর্থ দাও যাতে আমি তোমার সেই নিয়ামতের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতে পারি, যা তুমি আমাকে ও আমার পিতা-মাতাকে দান করেছ এবং যাতে আমি তোমার পছন্দনীয় সৎকর্ম করতে পারি এবং আমাকে নিজ অনুগ্রহে তোমার সৎকর্মপরায়ন বান্দাদের অন্তর্ভুক্ত কর।

 

নবী সোলাইমান এখানে পিঁপড়ার সাথে কথা বলেননি, বরং তার কোন প্রযুক্তি বা ক্ষমতা ছিল যা দিয়ে তিনি একটি সাথে অন্যান্য পিঁপড়ার মধ্যে যে যোগাযোগ হয়েছে তা তিনি বুঝতে পেরেছেন।

এই আয়াতে আল্লাহ আমাদেরকে পিঁপড়াদের সম্পর্কে কত বৈজ্ঞানিক তথ্য দিয়েছেন তা জানতে হলে পড়ুন-
http://miraclesofthequran.com/scientific_80.html

http://www.speed-light.info/miracles_of_quran/ants.htm