নদীর মাছ হারাম!

কোরআনে বলা হয়েছে,

তোমাদের জন্যে হারাম করা হয়েছে মৃত জীব, রক্ত, শুকরের মাংস, যেসব জন্তু আল্লাহ ছাড়া অন্যের নামে উৎসর্গকৃত হয়, যা কন্ঠরোধে মারা যায়, যা আঘাত লেগে মারা যায়, যা উচ্চ স্থান থেকে পতনের ফলে মারা যা, যা শিং এর আঘাতে মারা যায় এবং যাকে হিংস্র জন্তু ভক্ষণ করেছে, কিন্তু যাকে তোমরা যবেহ করেছ। ৫:৩

উপরের আয়াত দুটি থেকে স্পষ্ট, মরা প্রাণীকে খাওয়া আল্লাহ হারাম ঘোষনা করেছেন। তাহলে প্রশ্ন হচ্ছে, মৃত মাছ খাওয়া কী হালাল নাকি হারাম।

এই বিষয়ে কোরআনে বলা হচ্ছে,

তোমাদের জন্য সমুদ্র শিকার ও তা খাওয়া হালাল করা হয়েছে। ৫:৯৬

লক্ষ্য করে দেখুন, এখানে শুধুমাত্র সমুদ্রে শিকার হালাল করা হয়েছে। নদীর মাছ বা মৃত মাছ খাওয়া কিন্তু হালাল করা হয় নি। তাহলে আহলে কোরআনের অনুসারীগণ কী মৃত মাছ খান না?

জবাব:

তোমাদের জন্যে হারাম করা হয়েছে মৃত জীব (মাইতাতু) ৫:৩ আয়াতে আরবী মাইতাতু যার বাংলা অর্থ মৃত এ আয়াত কোনভাবেই ‘মাছ’ বা ‘সমুদ্র / নদী’ কে ইংগিত করে না। বরং ৫:১ আয়াতের উল্লেখিত চতুষ্পদ জন্তু/গবাদি পশু দিকে ইংগিত করে। সুতরাং এ আয়াতের সাথে মৃত মাছ এর কোন সর্ম্পক নেই।

 

“তোমাদের জন্য সমুদ্র(বাহরি) শিকার ও তা খাওয়া হালাল করা হয়েছে। ৫:৯৬

আরবি শব্দ ‘বাহর’ সমুদ্র, নদী বা জলাশয় থেকে প্রাপ্ত কোনও বৃহত পানি জমাকে বোঝায়। সুতরাং নদীর মাছ যে হারাম নয়  ‘বাহর ‘ শব্দ ব্যবহারের ফলে তা  প্রমাণিত হয়।

 

উংস:  Lane’s Lexicon-Page 156