নারীর মাসিক রজঃস্রাবকে রোগ বলা

কোরআনের ২:২২২ নাম্বার আয়াতে নারীর মাসিক রজঃস্রাবকে রোগ বলা হয়েছে–অতএব অবৈজ্ঞানিক!

জবাব:

কিছু অন্ধ ও গোঁড়া সমালোচক কোরআনের ২:২২২ নাম্বার আয়াতের পিকথালের অনুবাদ থেকে ‘Illness’ শব্দের অর্থ ‘রোগ’ বানিয়ে দিয়ে কোরআনকে শুধু অবৈজ্ঞানিক বলেই ক্ষান্ত হয়নি, সেই সাথে আবোল-তাবোল অনেক কিছুই বলেছে। অথচ ‘Illness’ শব্দের অর্থ হচ্ছে অসুস্থতা, রোগ নয়।

রোগ আর অসুস্থতা কিন্তু এক জিনিস নয়। মাসিক রজঃস্রাব কালে নারীরা একটু-আধটু অসুস্থতা অনুভব করতেই পারে। আর রজঃস্রাব কালে যেহেতু শরীর থেকে দুষিত পদার্থ বের হয় সেহেতু এই অবস্থাকে অশুচি বলা হয়েছে। যার ফলে আয়াতটাতে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার কথা এসেছে। পিকথালের অনুবাদে ‘Illness’ শব্দটা দেখেই রোগ বানিয়ে দেয়া হয়েছে। অথচ তার পরে যে ‘পবিত্র বা পরিষ্কার না হওয়া পর্যন্ত তাদের নিকট যাবে না’ লিখা আছে সেটা দেখার আর প্রয়োজন বোধ করেনি। রোগ আবার পরিষ্কার করা যায় নাকি! পাগোল কি আর গাছে ধরে!